সম্ভাব্য পরিপূর্ণ প্যাকেজ

সময়ের সঙ্গে দেখছি, তার শটের রেঞ্জ বেশ বেড়েছে। আত্মবিশ্বাস বেড়েছে। অথোরিটি বা কতৃত্ব বেড়েছে। পাওয়ার বেড়েছে, প্লেসমেন্টে আগের চেয়ে উন্নতি হয়েছে। আজকে রুবেলের বলে একটু শাফল করে ফ্লিকের মতো যে শটটি খেললেন, বিশ্বের যে কোনো বোলারের বলে যে কোনো…

মঞ্জু বনাম লারা ও সেসময়ের ক্রিকেটানন্দ

মজার ব্যাপার হলো, লারার ভূমিকা সেদিন ব্যাটিংয়েই শেষ ছিল না। বল হাতেও নিয়েছিলেন ১২ রানে ২ উইকেট! আরও মজার ব্যাপার, সেটিও লারার সেরা বোলিং ছিল না! ১৯৯৪ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে একটি ওয়ানডেতে ৫ রানে নিয়েছিলেন ২ উইকেট।

পাঁচ ‘হাঁস’ নিয়ে হাঁসফাঁস

পুরো চিত্রটা বুঝতে হলে যেতে হবে আরেকটু পেছনে। সেটি ১৯৯৯-২০০০ মৌসুমে ভারতের অস্ট্রেলিয়া সফর। সিরিজের প্রথম টেস্ট অ্যাডিলেইডে। প্রথম ইনিংসে ১৯ রান করেছিলেন আগারকার। দ্বিতীয় ইনিংস থেকেই শুরু তার দুঃস্বপ্ন যাত্রার। দীর্ঘ ও বিব্রতকর যাত্রা!

সেন্সিবল সিদ্ধান্তের জন্য ধন্যবাদ বিসিবি

দুই সপ্তাহ ক্যাম্প চলবে, নিবিড়ভাবে কাজ করা যাবে। এরপর একটি টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট হবে, হয় কর্পোরেট হাউজগুলিকে নিয়ে কিংবা জাতীয় দল-এইচপি-অনূর্ধ্ব ১৯ নিয়ে, এই ভাবনাও ভালো। এরপর পারিপার্শ্বিকতা অনুযায়ী প্রিমিয়ার লিগ, অন্যান্য লিগ, জাতীয় লিগ -…

টেস্ট খেলার কারণে যিনি বিয়ে পেছাতে বাধ্য হয়েছিলেন!

কাকতাল, সৌভাগ্য, দুর্ভাগ্য। সব মিলেমিশে একাকার ছিল এই ঘটনায়। নাম তাঁর অ্যান্থনি চার্লন শ্যাকলটন পিগট। ইংলিশ ক্রিকেটে পরিচিত টনি পিগট নামেই। ডানহাতি পেসার ছিলেন, ছন্দে থাকলে বেশ গতিময়। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে তার প্রথম তিন উইকেট ছিল…

তাঁর গ্রেটনেস গাঁথা আছে হৃদয়ে!

ক্যাসিয়াস মানে আমার কাছে টইটম্বুর আবেগ-ভালোবাসা, ক্যাসিয়াস মানে রোমাঞ্চের দোলা, ক্যাসিয়াস মানে শুদ্ধতা, ক্যাসিয়াস মানে ভরসা-আস্থা, ক্যাসিয়াস মানেই হয়তো ফুটবল। কিংবা আসলে এসবও কিছু নয় - সত্যি বলতে, একজন ক্যাসিয়াসকে ব্যাখ্যা করা বা শব্দে ধারণ…

‘ব্যাটসম্যান নান্নু’র ক্লাস না বোঝা ট্রল প্রজন্ম!

বাংলাদেশ টেস্ট স্ট্যাটাস পাওয়ার আট বছর আগেই কোচ মহিন্দর অমরনাথ বলেছিলেন, ‘নান্নু টেস্ট মানের ব্যাটসম্যান।’

একটি অবিশ্বাস্য অনুভূতি ও তার সুন্দরতম ঝংকার!

জিজু জানতেন, গোল করায় রোনালদোর শূন্যতা পূরণ হওয়ার নয়। তিনি তাই জোর দিয়েছিলেন এবার ডিফেন্স ও মিডফিল্ডে। মৌসুমের পর মৌসুম, শিরোপা হাতছাড়া হয়েছে কেবল ডিফেন্সের কারণে। এবারের শিরোপা আমাদের ডিফেন্সেরই উপহার।

ধ্রুপদী মিডিয়াম পেস বোলিংয়ের বিশুদ্ধ প্রদর্শনী

অধিনায়ক হিসেবেও এখন তিনি অনেক পরিণত। পারফর্ম করছেন, দলকে উজ্জীবিত করতে পারছেন। তার কথায়, মাঠের ভেতরে-বাইরে শরীরী ভাষায় আত্মবিশ্বাস ও কতৃত্বের ছাপ ফুটে উঠছে। তার মানে, ক্রমেই নেতা হয়ে উঠছেন।

ফিক্সিংয়ের ‘কিংপিন’, ফেক টুর্নামেন্ট ও এক অন্ধকার জগৎ

বহুবার বলা কথাটি আবারও বলছি, বলেই যাব বারবার, ক্রিকেটে যে কোনো পর্যায়ে, যে কোনো ধরনের ফিক্সিংয়ে সামান্যতম জড়িত থাকার প্রমাণ মিললেও ন্যূনতম শাস্তি হওয়া উচিত আজীবন নিষেধাজ্ঞা। সেটা ক্রিকেটার, সাপোর্ট স্টাফ, প্রশাসক বা ক্রিকেট সংশ্লিষ্ট সব…