ছয় ছক্কার প্রথম অধ্যায়

ড্যান ভ্যান বুঙ্গে - নাম তো সুনা হি হোগা! না, আসলেই যদি এই ভদ্রলোকের নাম শুনে না থাকেন তাহলে দোষের কিছু নেই একদম। ড্যান লুডভিক স্যামুয়েল ভ্যান বুঙ্গে তাঁর ক্রিকেট ক্যারিয়ারে এমন সুনাম কামাতে পারেননি যাতে করে, আপনি বা আমি তাঁকে মনে রাখতে বাধ্য।

ড্যান ভ্যান বুঙ্গে – নাম তো সুনা হি হোগা! না, আসলেই যদি এই ভদ্রলোকের নাম শুনে না থাকেন তাহলে দোষের কিছু নেই একদম। ড্যান লুডভিক স্যামুয়েল ভ্যান বুঙ্গে তাঁর ক্রিকেট ক্যারিয়ারে এমন সুনাম কামাতে পারেননি যাতে করে, আপনি বা আমি তাঁকে মনে রাখতে বাধ্য।

ওয়ানডে আর টি-টোয়েন্টি মিলিয়ে নেদারল্যান্ডসের এই ক্রিকেটার ৫১ টি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছেন বটে। তবে তাঁর ৭০০’র ওপর রান আর ১২ টি উইকেট দিয়ে ক্রিকেটের ইতিহাসের বুকে তাঁকে আলাদা করে চেনাটা মুশকিল।

সুনাম না কামালেও ক্যারিয়ারে দুর্নাম ঠিকই কামিয়ে গেছেন ড্যান ভ্যান। ক্রিকেটের লজ্জার এক রেকর্ডের সাথে আজীবন জড়িয়ে থাকবে তাঁর নাম।

সেটা ২০০৭ সালের ঘটনা। সেবারের বিশ্বকাপে ওয়ানডে ক্রিকেটের ইতিহাসে প্রথমবারের মত ঘটে অভিনব এক ঘটনা। এক ওভারের প্রতিটা বলে ছক্কা হাঁকানোর নজীর ঘটান এক ব্যাটসম্যান। তিনি দক্ষিণ আফ্রিকান সুপারস্টার ওপেনার হার্শেল গিবস। আর বোলারটি হলেন ওই ড্যান ভ্যান বুঙ্গে।

দিনটা ছিল ২০০৭ সালের ১৬ মার্চ।  গ্রুপ পর্বের  লড়াইয়ে সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিসে দক্ষিণ আফ্রিকা মাঠে নামে নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে। দু’দলের মধ্যকার তুলনাই যেন অমূলক। আর সেটা যেন আরো বাড়িয়ে দিলেন হার্শেল গিবস।

বৃষ্টির কারণে ম্যাচটা নেমে এসেছিল ৪০ ওভারে। আর সেই ৪০ টি ওভারেই দক্ষিণ আফ্রিকা প্রথমে ব্যাট করতে নেমে করে ৩৫৩ রান, তিন উইকেট হারিয়ে। ইনিংসের মাত্র দ্বিতীয় বলেই অবশ্য রানের খাতা খোলর আগে সাজঘরে ফেরেন এবি ডি ভিলিয়ার্স। তবে, বাকি যে যার ব্যাটসম্যান ক্রিজে এসেছেন, সবাই ব্যাট করেছেন রান রেটের ওপর ছড়ি ঘুরিয়ে।

অধিনায়ক গ্রায়েম স্মিথ ৫৯ বলে ৬৭, জ্যাক ক্যালিস ১০৯ বলে ১২৮ রান করেন। তবে, এই দু’জনের চেয়েও দানবীয় ছিলেন হার্শেল গিবস ও মার্ক বাউচার। এই দুজন যথাক্রমে ১৮০ ও ২৪২ স্ট্রাইক রেটে ব্যাট করেন, ঝড় তোলেন।

মার্ক বাউচার  ৩১ বলে ৭৫ রান করেন, হার্শেল গিবস করেন ৪০ বলে ৭২ রান। এর মধ্যেই এক ওভারের ছয়টা বলকেই বাউন্ডারির ওপারে পাঠিয়ে অনন্য কীর্তি গড়েন হার্শেল গিবস। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে এর আগেই সেই কীর্তি গড়েছিলেন স্যার গ্যারি সোবার্স ও রবি শাস্ত্রী।

তবে, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সেটাই ছিল এক ওভারে ছয় ছক্কার প্রথম নজীর। সেই ওভার, এই তাণ্ডব তাই ইতিহাসের পাতাতেই ঠাই করে নিয়েছে। আর সেই ইতিহাসের মহানায়ক হার্শেল গিবস।

সেবছরই দক্ষিণ আফ্রিকায় বসে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রথম আসর। সেখানে ইংল্যান্ডের স্টুয়ার্ট ব্রডের বিপক্ষে এক ওভারে ছয় ছক্কা হাঁকান ভারতের যুবরাজ সিং। পরে ২০২১ টি-টোয়েন্টিতে সেই ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটান ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাইরেন পোলার্ড, শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে। তবে, ওয়ানডে ক্রিকেটে আজ অবধি হার্শেল গিবসের কোনো সঙ্গীর দেখা মিলেনি।

তাই, ওয়ানডেতে লজ্জার সেই রেকর্ডে আজো একা মাথা নিচু করে এস আছেন ড্যান ভ্যান বুঙ্গে। সেই বিশ্বকাপ শেষে দেশে ফিরেই ড্যান ভ্যান বুঙ্গে ক্রিকেটকে বিদায় জানিয়ে বসেছিলেন আক্ষেপ থেকে। তবে, আবার ঠিক পরের বছরই, মানে ২০০৮ সালে ফিরেছিলেন। নেদারল্যান্ডসের হয়ে খেলেছেন ২০১৪ সাল অবধি।

কে জানে, হার্শেল গিবসের বিপক্ষে করা দু:সহ ওভারের দু:স্বপ্ন হয়তো আজো তাঁকে তাড়া করে বেড়ায়।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

আরও পড়ুন
মন্তব্যসমূহ
Loading...