দুই রুপের জাসপ্রিত, ভারতকে নিয়ে যাবেন শিরোপার দরজায়

চাইলেই যে বুমরাহ দুই ভিন্নরুপে আবির্ভূত হতে পারেন। তিনি শিকারি হতে পারেন কিংবা হতে পারেন রক্ষনশীল।

২০২২ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলতে পারেননি জাসপ্রিত বুমরাহ। কারণটা ছিল তার শত্রু। শুধু তার নয় সকল পেস বোলারদের চিরন্তন দুশমন ইনজুরি। সেই ইনজুরির বাঁধায় সময়ের অন্যতম সেরা বোলারকে ছাড়াই বিশ্বকাপ খেলতে হয়েছিল ভারতকে।

কিন্তু এবারের পরিস্থিতি ভিন্ন। জাসপ্রতি বুমরাহ খেলতে চলেছেন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। স্কোয়াডে জায়গা হয়েছে তার। ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল) বল হাতে দারুণ সময় পার করেছেন বুমরাহ। তার দল মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স বেজায় খারাপ করেছে সদ্য শেষ হওয়া আইপিএলে। তবে বুমরাহ ছিলেন স্বমহীমায় উজ্জ্বল।

মাত্র ১৩ ম্যাচ খেলেই ২০ উইকেট বাগিয়েছেন ডানহাতি এই পেসার। দারুণ ছন্দে থাকা বুমরাহ যাচ্ছেন যুক্তরাষ্ট্রে। বহুল প্রতিক্ষিত শিরোপা জয়ের ক্ষেত্রে সম্মুখভাগ থেকেই অবদান রাখতে চাইবেন বুমরাহ। তার উপরই যে নির্ভর করছে ভারতের বোলিং লাইনআপ।

তাছাড়া অভিজ্ঞতার বিচারে ভারতের পেস আক্রমণের অন্যতম সেরা বুমরাহ। তিনজন সম্মুখসারির পেসার দিয়ে ভারত সাজিয়েছে নিজেদের স্কোয়াড। স্বাভাবিকভাবেই জাসপ্রিতের উপর থাকবে বাড়তি দায়িত্ব। যদিও টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সফলতা তেমন একটা ধরা দেয়নি বুমরাহের কাছে।

২০১৬ ও ২০২১ এই দুই বিশ্বকাপে অংশ নিয়েছিলেন বুমরাহ। ভারতের নীল জার্সি গায়ে ১০ ম্যাচে মাঠে নেমেছিলেন তিনি। সেই ১০ ম্যাচে ১১টি উইকেট শিকার করতে পেরেছেন তিনি। তবে সময়ের সাথে সাথে জাসপ্রিত বুমরাহ হয়েছেন অপ্রতিরোধ্য।

২০২৩ ওয়ানডে বিশ্বকাপেই তো দেখিয়েছেন সেই ঝলক। ১১ ম্যাচে ২০ উইকেট নিয়েছিলেন তিনি। সে ধারা অব্যাহত রেখেছেন আইপিএলেও। তাইতো ভারতীয় সমর্থকদের আশার বেলুন ফুলে-ফেপে উঠেছে এদফা। বুমরাহর উপর রাখতে চাইছেন সকলেই ভরসা।

যদিও পরিসংখ্যানের খাতায় খুব একটা সন্তুষ্টি ফুটে উঠছে না। কিন্তু নামটা যখন জাসপ্রিত বুমরাহ তখন আস্থা রাখার বিকল্প নেই। এই সময়ের অন্যতম পেসার তিনি। যেকোন সময়ে ম্যাচে গতিপথ বদলে দিতে পারেন। ডেথ ওভারে তার করা ইয়োর্কার তো রীতিমত আগুনের গোলা। সেগুলো সামলে ব্যাটারদের নিজ পায়ে দাঁড়িয়ে থাকাই যেন মুশকিল।

উইকেট শিকারের ক্ষেত্রে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে খুব একটা সফলতার মুখ হয়ত তিনি দেখেননি। তবে রান আটকে রাখার কাজটা করতে পেরেছেন তিনি ঠিকই। মাত্র ৬.৪১ ইকোনমি রেটে রান খরচা করেছেন। চাইলেই যে বুমরাহ দুই ভিন্নরুপে আবির্ভূত হতে পারেন। তিনি শিকারি হতে পারেন কিংবা হতে পারেন রক্ষনশীল। সে কারণেই ভারতের শিরোপা জয়ের ক্ষেত্রে জাসপ্রিত বুমরাহ হতে চলেছে গুরুত্বপূর্ণ এক সংযোজন।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

আরও পড়ুন
মন্তব্যসমূহ
Loading...