সাকিবের সিদ্ধান্তে ডমিঙ্গোর শ্রদ্ধা

খোদ বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন পর্যন্ত প্রকাশ্যে সমালোচনা করেছেন সাকিবের। তবে এই অলরাউন্ডারের পাশে দাঁড়িয়ে তাঁর সিদ্বান্তের প্রতি সম্মান জানিয়েছেন বাংলাদেশের প্রধান কোচ রাসেল ডোমিঙ্গো।

এবারের আইপিএল খেলার জন্য শ্রীলংকা সিরিজ থেকে ছুটি নিয়েছেন সাকিব আল হাসান। সাকিবের এমন সিদ্ধান্তে অবাক হয়েছেন অনেকেই। জাতীয় দলের থেকে ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগকে প্রাধান্য দেওয়াতে সাকিবের নিবেদন নিয়েও উঠেছে প্রশ্ন।

খোদ বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন পর্যন্ত প্রকাশ্যে সমালোচনা করেছেন সাকিবের। তবে এই অলরাউন্ডারের পাশে দাঁড়িয়ে তাঁর সিদ্বান্তের প্রতি সম্মান জানিয়েছেন বাংলাদেশের প্রধান কোচ রাসেল ডোমিঙ্গো।

জনপ্রিয় ক্রিকেট ভিত্তিক ওয়েবসাইট ক্রিকইনফোকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে রাসেল ডোমিঙ্গো বলেন, কে কোথায় খেলবেন এটা একান্তই ক্রিকেটারদের ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত। তবে সাকিবকে সবসময়ই দলে চান তিনি।

সাকিব ছুটি চাওয়ার পরই তা মঞ্জুর করে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। সাকিবের আবেদনে সাড়া দিয়ে বোর্ড থেকে জানানো হয়েছিলো কাউকে জোর করে খেলাতে চায়না বাংলাদেশ ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রণ সংস্থাটি। ডোমিঙ্গোও একমত প্রকাশ করেছেন বোর্ডের সিদ্বান্তের সাথে। ডোমিঙ্গো মনে করেন একজন পেশাদার ক্রিকেটারের এরকম সিদ্বান্তে বাইরের কারো হস্তক্ষেপ করা উচিত নয়।

ডোমিঙ্গো বলেন, ‘কোচ হিসেবে আমি সবসময় সাকিবকে দলে পেতে চাইবো। তবে অন্যদিকে, যদি খেলোয়াড় সম্পূর্ণভাবে এর ভেতরে না থাকে এবং ক্যারিয়ারের এমন পর্যায়ে এসে অন্য কোথাও সুযোগ থাকে- তাহলে তার সিদ্ধান্ত সম্পর্কে মন্তব্য করা কঠিন। আমি মনে করি, এই সিদ্ধান্তটা তাকে নিতেই হতো। সে বিভিন্ন মহল থেকে মতামত নিতে পারে, তবে এটা একান্তই সাকিবের সিদ্ধান্ত। কোচ হিসেবে আমি তার সিদ্ধান্তকে সম্মান জানাই। এটা তার ক্যারিয়ার এবং জীবিকা নির্বাহের উপায়, তাই এই বিষয়ে মতামত জানানোর মতো আমরা কেউ নই।’

সাকিবের এরকম সিদ্বান্তের পরই সরব হয়েছে বিসিবি; চুক্তির শর্তেও আসতে যাচ্ছে পরিবর্তন। এখন থেকে চুক্তিতেই লেখা থাকবে কে কোন ফরম্যাট খেলতে চায়। যারা চুক্তিতে থাকবে তাদের আর ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগে খেলতে দেওয়া হবেনা। যাদের ইচ্ছা তারা চুক্তিতে স্বাক্ষর করবে। ডোমিঙ্গো এই সিদ্বান্তের সাথে একমত প্রকাশ করে জানিয়েছেন কাউকে আর জোড় করে খেলানো হবে না।

বাংলাদেশের প্রধান কোচ বলেন, ‘আমি জানি, বাংলাদেশের হয়ে খেলার সময় সে সম্পূর্ণ কমিটেড থাকে। কোন কোন ফরম্যাটে সাকিব খেলবে, সেই আলোচনা আরও সামনে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া দরকার। যেভাবে ক্রিকেট এখন চলছে, কাউকে এখন জোর করে খেলানোর সুযোগ নেই। বোর্ড এবং ক্রিকেটাররা যে সিদ্ধান্ত নেবে, সেই সিদ্ধান্তকে আমাদের সম্মান জানাতে হবে।’

শুধু শ্রীলংকা সিরিজেই নয়। সন্তান সম্ভবা স্ত্রীর পাশে থাকতে আসন্ন নিউজিল্যান্ড সিরিজ থেকেও ছুটি নিয়েছেন সময়ের সেরা এই অলরাউন্ডার।

গত বৃহস্পতিবার চেন্নাইয়ে অনুষ্ঠিত হয় আইপিএলের ১৪তম আসরের নিলাম। নিলাম থেকে ৩ কোটি ২০ লাখ রুপিতে সাকিব আল হাসানকে দলে নিয়েছে কলকাতা নাইট রাইডার্স। এর আগেও কলকাতার হয়ে আইপিএল খেলেছেন সাকিব।

আরও পড়ুন

Leave A Reply

Your email address will not be published.