আইপিএলে সাকিবের সম্ভাব্য তিন গন্তব্য

নিলামে দলগুলোর আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দুতেই থাকবেন সাকিব।সেই আগ্রহটা অমূলকও নয়। সাকিব খুবই কার্য্যকর ক্রিকেটার, বল হাতে পুরো চার ওভার বোলিং করবেন, উইকেট নেবেন। ব্যাটিংয়ে মিডল অর্ডারে রান করবেন। আর আইপিএলে খেলা বিদেশিদের মধ্যে সবচেয়ে অভিজ্ঞ ক্রিকেটারদের একজন হলেন এই সাকিব। সাকিব আল হাসান ৬৩ আইপিএল ম্যাচে ৫৯ উইকেট নিয়েছেন আর ব্যাট হাতে করেছেন ৭৪৬ রান। সাকিবের এই পারফর্মেন্সের কারনে আইপিএলের কয়েকটি দল তাকে দলে ভিড়ানোর জণয মুখিয়ে থাকবে।

বিশ্বের মঞ্চে এখনো বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় বিজ্ঞাপনের নাম হল সাকিব আল হাসান। সেটা তিনি এক বছরের নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ফেরার পরও সত্য।

নিষেধাজ্ঞার সময় তিনি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট তো বটেই, খেলতে পারেননি বিশ্বের নানা প্রান্তে হওয়া ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটও। তবে, সেই অপেক্ষার অবসান হতে চলেছে। সব কিছু ঠিকঠাক থাকলে আসছে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগেই (আইপিএল) দেখা যাবে বিশ্বের অন্যতম সেরা এই অলরাউন্ডারকে।

আসছে এপ্রিল-মে মাসে অনুষ্ঠিত হবে আইপিএল। এর আগে ফেব্রুয়ারির ১৮ তারিখে চেন্নাইয়ে বসবে এই আসরের নিলাম। আর সেই নিলামে দলগুলোর আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দুতেই থাকবেন সাকিব।

সেই আগ্রহটা অমূলকও নয়। সাকিব খুবই কার্য্যকর ক্রিকেটার, বল হাতে পুরো চার ওভার বোলিং করবেন, উইকেট নেবেন। ব্যাটিংয়ে মিডল অর্ডারে রান করবেন। আর আইপিএলে খেলা বিদেশিদের মধ্যে সবচেয়ে অভিজ্ঞ ক্রিকেটারদের একজন হলেন এই সাকিব।

সাকিব ৬৩ আইপিএল ম্যাচে ৫৯ উইকেট নিয়েছেন আর ব্যাট হাতে করেছেন ৭৪৬ রান। খেলেছেন কলকাতা নাইট রাউডার্স ও সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের মত দলের হয়ে। একাধিকবার জিতেছেন বিশ্বের সবচেয়ে আলোচিত এই টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টের শিরোপা। সাকিবের এই পারফর্মেন্সের কারণে আইপিএলের বেশ কয়েকটি দল তাকে দলে ভিড়ানোর জণয মুখিয়ে থাকবে।

  • রাজস্থান রয়্যালস

২০২০ আইপিএলে রাজস্থানের পারফর্মেন্স ছিলো যচ্ছেতাই। টেবিলে তলানীতে থেকে শেষ করে আইপিএলের ১৩ তম মৌসুম। এই অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য এক বিশাল পরিবর্তন আনতে যাচ্ছে রাজস্থান দল ম্যানেজমেন্ট। এরই মধ্যে রাজস্থান দল তাদের অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথকে ছেড়ে দিয়েছে। অধিনায়কের দায়িত্ব পেয়েছেন সাঞ্জু স্যামসন।সর্বশেষ আসর জুড়ে ব্যাটিং নিয়ে খুবই দুঃশ্চিন্তায় ছিলেন দলের কোচ।

তাই, এই সমস্যা সমাধানে তাঁদের লক্ষ্য হতে পারেন সাকিব আল হাসান। আর সাথে স্টিভ স্মিথের সঠিক প্রতিস্থাপন হতে পারেন। বেন স্টোকস এবং সাকিব দুইজনই রাজস্থান দল একজন অতিরিক্ত ব্যাটসম্যানের সুবিধা পেতে পারে । তাই টিম রাজস্থানের লক্ষ্য থাকবে সাকিব আল হাসান।

  • রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু

সর্বশেষ আইপিএল ব্যাঙ্গালুরুর জন্য ভালো একটি মৌসুম কেটেছে। কারন এর আগে সর্বশেষ তিন বছর তারা কোয়ালিফায়ার খেলতে পারেনি। ভালো একটি মৌসুম কাটানোর পরও তাদের জন্য দু:শ্চিন্তার কারণ হিসেবে ছিলো ওপেনার অ্যারন ফিঞ্চের অফ ফর্ম। ফিঞ্চ থাকার কারণে বিরাট সর্বশেষ আইপিএলে ওপেনিংয়ে নামতে পারেননি।

যদি, সাকিবকে তাঁরা দলে ভিড়াতে পারে তাহলে বিরাট ওপেনিংয়ে নামতে পারেন এবং সাকিব তিন নম্বরে ব্যাটিং করতে পারবেন। এর ফলে ব্যাঙ্গালুরু একজন অতিরিক্ত ব্যাটসম্যানের পাশাপাশি অতিরিক্ত বোলারের সুবিধা পাবে। টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানের পাশাপাশি একজন বোলারের সুবিধা পেতে সাকিবকে দলে ভিড়াতে সচেষ্ট থাকবে ব্যাঙ্গালুরু। সাকিবকে এবার বিরাটের সাথে জুটি বাঁধতে দেখলে অবাক হওয়ার কিছু নেই।

  • কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব

কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের জন্য সাকিব আল হাসানকে দলে ভিড়াতে সুবিধা হবে। কারণ, তাঁরা এখনো বিদেশি ক্রিকেটারের কোটা এখনো পূর্ণ করতে পারে নি। পাঞ্জাবের মিডল অর্ডারের দুই ভরসা গ্লেন মাক্সওয়েল এবং জিমি নিশামকে দলে না রাখার কারণে সাকিবকে দলে ভেড়াতে সর্ব্বোচ্চ চেষ্টা চালাবে।

সাকিব আল হাসানের ব্যাটিং সামর্থ্যের পাশাপাশি বোলিং করতে পারার সুবিধার জন্য দলে ভিড়ানোর চেষ্টায় থাকবে পাঞ্জাব। এখন পর্যন্ত আইপিএলে পাঞ্জাবের বড় কোনো সাফল্য নেই। তাই, সাফল্যের জন্য হন্যে হয়ে থাকা প্রীতি জিনতার দল চোখ রাখতে পারে সাকিবের দিকে।

আরও পড়ুন
মন্তব্যসমূহ
Loading...