মুশতাক আলী ট্রফির পরিবারতন্ত্র

আইপিএল ফ্রাঞ্চাইজিগুলোও পরবর্তী আসরের খেলোয়াড় বাছাইয়ের জন্যে এই ট্রফির দিকে পাখির চোখ করে থাকে। আবার অভিজ্ঞ খেলোয়াড়েরা নিজেদের ঝালাই করে নেয় এই ট্রফি দিয়ে; দীর্ঘদিনের রানখরাও তাঁরা কাটায় এই ট্রফির মধ্যে দিয়েই।

ভারতের ঘরোয়া আসরে সৈয়দ মুস্তাক আলী ট্রফির একটা আলাদা মর্যাদা আছে।

ভীষণ মর্যাদাপূর্ণ এই ট্রফি জিততে সব দলের খেলোয়াড়দেরই একটা আলাদা নজর থাকে। আইপিএল ফ্রাঞ্চাইজিগুলোও পরবর্তী আসরের খেলোয়াড় বাছাইয়ের জন্যে এই ট্রফির দিকে পাখির চোখ করে থাকে। আবার অভিজ্ঞ খেলোয়াড়েরা নিজেদের ঝালাই করে নেয় এই ট্রফি দিয়ে; দীর্ঘদিনের রানখরাও তাঁরা কাটায় এই ট্রফির মধ্যে দিয়েই।

আগামী রবিবার থেকে শুরু হচ্ছে সেই ট্রফিটার ২০২১ সংস্করণের আসর। টি-২০ এই টুর্নামেন্টে এই আসরে খেলছে সাবেক কিছু ক্রিকেটারের পরিবারের সদস্যরা। এই গল্পটা তাদের নিয়েই।

  • মায়াঙ্ক দাগার: বীরেন্দ্র শেবাগের ভাতিজা

বীরেন্দ্র শেবাগকে কে না চেনে। ভারতের ২০১১ বিশ্বকাপ জিততে তাঁর ছিল তাৎপর্য্যপূর্ণ ভূমিকা। সেই শেবাগের ভাতিজা মায়াংক এবার খেলবেন সৈয়দ মুশতাক আলী ট্রফিতে। মায়াংকের দল “হিমাচল প্রদেশ ক্রিকেট দল”। একটু যোগ করি, মায়াংক এই মুহুর্তে ভারতের অন্যতম ফিট একজন খেলোয়াড়।  বাঁহাতি এই স্পিনার এর আগে আইপিএলেও খেলেছেন কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের হয়ে।

  • অর্জুন টেন্ডুলকার: শচীন টেন্ডুলকার পুত্র

২০ ওভারের টুর্নামেন্টটিতে অর্জুন টেন্ডুলকার খেলবেন ‘মুম্বাই ক্রিকেট দল’-এর হয়ে। ভারতীয় মিডিয়াতে অর্জুন টেন্ডুলকার অনেক দিন ধরেই আলোচিত এক নাম। কেতাবি ভাষায় তিনি বাঁহাতি ফাস্ট বোলার।

বাবা শচীন টেন্ডুলকারের সাথে তাঁর প্র্যাকটিস সেশনের ছবি নানা সময়েই ঘোরে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। মোটকথা, ক্রিকেটে নিজেকে ধীরে ধীরেই গড়ে তুলেছেন অর্জুন। এখন দেখা যাক, এই টুর্নামেন্টে তার ছাপ তিনি কতটা রাখতে পারেন।

  • ক্রুনাল পান্ডিয়া: হার্দিক পান্ডিয়ার ভাই

এই মুহুর্তে আধুনিক ক্রিকেটে হার্দিক পান্ডিয়া অন্যতম কার্যকরী এক অলরাউন্ডার। ব্যাটিং, বোলিং, ফিল্ডিং সব বিভাগেই নিজেকে ধীরে ধীরে অন্য এক উচ্চতায় নিয়ে যাচ্ছেন তিনি। সেই হার্দিক পান্ডিয়ার ভাই ক্রুনাল পান্ডিয়া এবার সৈয়দ মুশতাক আলী ট্রফিতে খেলবেন বরোদার অধিনায়ক হিসেবে।

ক্রুনাল অবশ্য নিজ নামেই এর মধ্যে পরিচিত। এরই মধ্যে ভারতের হয়ে ১৮টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলে ফেলেছেন এই অলরাউন্ডার।

  • রাহুল চাহার: দীপক চাহারের চাচাত ভাই

দীপক চাহার মোটামুটিভাবে ভারতীয় ক্রিকেটে এক পরিচিত নাম। চেন্নাই সুপার কিংসের হয়ে দারুণ পারফর্ম্যান্সের সুবাদে তিনি জায়গা করে নিয়েছেন ভারতের টি-টোয়েন্টি দলেও।

দীপক চাহারের চাচাত ভাই রাহুল চাহারও একজন ক্রিকেটার, খেলেন মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে। তবে রাহুল চাহারের সাথে রাজস্থান দলে এবার খেলবেন দীপক চাহারও।

  • মোহাম্মদ কাইফ: মোহাম্মদ শামির ভাই

মোহাম্মদ শামি এই মুহুর্তে ভারতীয় ক্রিকেট দলে প্রথম সারির পেসার। বড় বড় টুর্নামেন্টে ভারতের বোলিং লাইনআপের ভার থাকে তাঁর কাঁধেই । ভাই মোহাম্মদ শামির পদাঙ্ক অনুসরণ করে মোহাম্মদ কাইফও হয়েছেন পেস বোলার, তবে এর সাথে আরেকটু পরিচয় আছে তাঁর। ব্যাট চালাতেও তিনি সিদ্ধহস্ত।

হ্যা, মোহাম্মদ কাইফ পেস বোলিং অলরাউন্ডার। এবারের সৈয়দ মুস্তাক আলী ট্রফিতে তিনি খেলবেন ‘বাংলা’র হয়ে। অনুষ্টুপ মজুমদারের অধিনায়কত্বে তিনি ভাইয়ের পারফর্ম্যান্সের ছাপ রাখতে পারেন কিনা সেটাই এখন দেখার বিষয়।

 

আরও পড়ুন
মন্তব্যসমূহ
Loading...