বন্ধু তুমি, শত্রু তুমি

দিন পাঁচেক পরেই ক্রিকেট ইতিহাসের সবচেয়ে বড় মর্যাদার লড়াই - তার আগে কিনা প্রতিপক্ষ দুই দলের সেরা তিন ব্যাটার একই সাথে নেটে অনুশীলন করছে? এ তো বাঘে মহিষে এক ঘাটে জল খাওয়ার মতোই ব্যাপার। জ্বি, হ্যাঁ ঠিক এমনটাই ঘটেছে অস্ট্রেলিয়ার ব্রিসবেনে।

দিন পাঁচেক পরেই ক্রিকেট ইতিহাসের সবচেয়ে বড় মর্যাদার লড়াই – তার আগে কিনা প্রতিপক্ষ দুই দলের সেরা তিন ব্যাটার একই সাথে নেটে অনুশীলন করছে? এ তো বাঘে মহিষে এক ঘাটে জল খাওয়ার মতোই ব্যাপার। জ্বি, হ্যাঁ ঠিক এমনটাই ঘটেছে অস্ট্রেলিয়ার ব্রিসবেনে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে ভাইরাল এক ভিডিওতে দেখা যায়, অস্ট্রেলিয়ার সাথে ওয়ার্মআপ ম্যাচের পরই, বিরাট কোহলি এই মাঠে নেট প্র্যাকটিসে থাকা মোহাম্মদ রিজওয়ান-বাবর আজমদের সাথে যোগ দেন।সেখানে প্রায় ৪০ মিনিট তিনি অনুশীলন করেন। ওই সময়ে ওয়ার্মআপ ম্যাচে মিশেল স্টার্কের শর্ট বলে আউট হওয়া নিয়ে কোহলিকে কাজ করতে দেখা যায়। ভারতীয় কোচ রাহুল দ্রাবিড় সম্পূর্ণ সেশনে কোহলির সঙ্গী ছিলেন।

আইসিসি বিশ্বকাপের অফিশিয়াল ওয়ার্মআপ ম্যাচ খেলতে ভারত ও পাকিস্তান দুই দলই এখন গ্যাবায়। ভারত নিজেদের প্রথম ওয়ার্মআপ ম্যাচে অস্ট্রেলিয়াকে ৬ রানে হারালেও পাকিস্তান ইংল্যান্ডের কাছে ৬ উইকেটে হেরে যায়। বাবর আজম ও মোহাম্মদ রিজওয়ান পাকিস্তানের ম্যাচে মাঠে না নামলেও বিরাট কোহলি ম্যাচ প্র্যাকটিসের সুযোগ হাতছাড়া করেন নি।

বিরাট কোহলি ম্যাচে ১৩ বলে ১৯ রানের সম্ভবনাময় শুরু করলেও মিচেল স্টার্কের খাটো লেন্থ এর বলে মিশেল মার্শকে ক্যাচ দিয়ে আউট হয়ে যান। এরপর ফিল্ডিংয়ে দারুণ দুইটি ক্যাচ ও একটি রান আউটে দলের জয়ে দারুণ ভূমিকা রাখেন।

তবে, বিরাট কোহলির আসল কাজ যে ব্যাটিং তা নিয়ে অতৃপ্ত বিশ্বসেরা এই ব্যাটার ম্যাচ শেষ হতেই কোচ রাহুল দ্রাবিড়কে নিয়ে ছুটে যান পাকিস্তানের নেটের কাছে।ওই সময়ে নেট প্র্যাকটিসে থাকা বাবর আজম-মোহাম্মদ রিজওয়ানরা বিরাট কোহলিকে সাদরে গ্রহণ করেন।আর বিরাট কোহলিও সুযোগ পেয়ে সাথে সাথেই ওয়ার্মআপ ম্যাচের ভুল গুলো শুধরে নেন। 

কথার লড়াইয়ে একে অপরকে শেষ করে ফেলার প্রত্যয়ে থাকা ভারত পাকিস্তানের সাম্প্রতিক সময়ের মাঠের খেলোয়াড়দের দৃশ্যগুলো বড্ড সৌহার্দ্যপূর্ণ। এত দিন বিরাট কোহলি-শহীদ আফ্রিদি-বাবর আজম-রোহিত শর্মাদের সৌজন্যে সম্মান ও সম্প্রীতির দৃশ্য গুলো মাঠের বাইরে দেখা মিললেও এই বিশ্বকাপে মোহাম্মদ শামি-শাহীন শাহ আফ্রিদি ও বিরাট কোহলি-বাবর আজমদের ভালোবাসা ও শ্রদ্ধার চিত্র মাঠেও দেখা মেলে। নেট প্র্যাকটিসে যতই উষ্ণ অভ্যর্থনা জানাক না কেন, আগামী রোববার মেলবোর্নের মাঠে বিরাট কোহলি-বাবর আজমরা একে ওপরের চিরশত্রু হিসেবেই মুখোমুখি হবে।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

আরও পড়ুন
মন্তব্যসমূহ
Loading...