লজ্জায় ডুবে ঘুম ভাঙল পাকিস্তানের

আইরিশদের বিপক্ষে পাঁচ উইকেটের লজ্জাজনক পরাজয়ের স্বাদ পেতে হয়েছিল পাকিস্তানকে। তবে এটাকে বিশ্বকাপের আগে ‘ওয়েক আপ কল’ হিসেবেই দেখছেন ফখর জামান।

আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচেই অপ্রত্যাশিত এক পরাজয়ের মুখোমুখি হতে হয়েছিল পাকিস্তানকে। একই অভিজ্ঞতা হতে পারতো দ্বিতীয় ম্যাচেও, ১৯৩ রানের বিশাল লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে তেরো রানেই বাবর আজম ও সায়িম আইয়ুবের উইকেট হারিয়ে বসেছিল তাঁরা। যদিও মোহাম্মদ রিজওয়ান আর ফখর জামান রক্ষা করেন দলকে; দু’জনের অনবদ্য ব্যাটিংয়ে শেষমেশ জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে সফরকারীরা।

মাত্র ৭৮ বলে ১৪০ রানের দুর্দান্ত এক জুটি গড়েছিলেন তাঁরা। দ্রুত দুই উইকেট হারানো সত্ত্বেও যেভাবে আক্রমণাত্বক ব্যাটিং করেছেন, সেটি নজর কেড়েছে সবারি। এ ব্যাপারে ফখর জামান পরবর্তীতে বলেন, ‘শুরুতেই দুই ব্যাটারকে হারানোর পরও আমাদের পরিকল্পনা ছিল কাউন্টার অ্যাটাক করা।’

তিনি আরো বলেন, ‘এটা সত্যি যে ১৩ রানে দুই উইকেট হারালে আপনি চাপে পড়বেনই। কিন্তু আমরা প্রতি আক্রমনের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম, এটা আমাদের চাপ থেকে বেরিয়ে আসতে সাহায্য করেছিল। আমরা মূলত ১৮ ওভারের মধ্যেই ম্যাচ শেষ করতে চেয়েছিলাম।’

স্কোরবোর্ডে তাকালেও এই বাঁ-হাতির কথার প্রমাণ পাওয়া যাবে। তিনি নিজেই প্রায় ২০০ স্ট্রাইক রেটে ব্যাট করেছিলেন, অন্যদিকে রিজওয়ানও স্বভাবসুলভ ধীরগতিতে খেলার বদলে দ্রুত রান তোলার দিকে মনোযোগী ছিলেন।

যদিও প্রথম ম্যাচে এমন কিছুই হয়নি; ব্যাটিং লাইনআপের প্রায় সবাই ব্যর্থ হয়েছিলেন আইরিশ বোলারদের বিরুদ্ধে। স্বাভাবিকভাবেই পাঁচ উইকেটের লজ্জাজনক পরাজয়ের স্বাদ পেতে হয়েছে তাঁদের। তবে এটাকে বিশ্বকাপের আগে ‘ওয়েক আপ কল’ হিসেবেই দেখছেন ফখর।

তিনি বলেন, ‘আমরা যেভাবে প্রথম খেলা হেরেছি সেই অনুযায়ী আমাদের একটি ওয়েক আপ কলের প্রয়োজন ছিল। দ্বিতীয় ম্যাচে আমাদের মাথায় পরাজয়ের ব্যাপারটি ছিল, সেই কারণেই সবাই তাদের সেরাটা দিয়ে খেলেছে।’

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

আরও পড়ুন
মন্তব্যসমূহ
Loading...