আইপিএলের চূড়ান্ত সূচি প্রকাশ

বর্তমান চ্যাম্পিয়ন মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স ও রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরের ম্যাচ দিয়ে আগামী ৯ এপ্রিল মাঠে গড়াবে আইপিএলের ১৪ তম আসর। উদ্বোধনী ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে চেন্নাইয়ের এম. এ. চিদাম্বরম স্টেডিয়ামে। দেড় মাসের লড়াই শেষে ৩০ মে বিশ্বের বৃহত্তম ক্রিকেট গ্রাউন্ড আহমেদাবাদের নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামে ফাইনালের মধ্য দিয়ে পর্দা নামবে জনপ্রিয় এই ফ্র্যাঞ্চাইজি ভিত্তিক টুর্নামেন্টের।

অপেক্ষার অবসান হল। ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) ১৪ তম আসরের চূড়ান্ত সূচি প্রকাশ করেছে বোর্ড অব কনট্রোল ফর ক্রিকেট ইন ইন্ডিয়া (বিসিসিআই)। করোনার কারণে আইপিএলের সর্বশেষ আসর আরব আমিরাতে অনুষ্ঠিত হলেও এবারের আসর অনুষ্ঠিত হবে ভারতেই।

বর্তমান চ্যাম্পিয়ন মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স ও রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরের ম্যাচ দিয়ে আগামী ৯ এপ্রিল মাঠে গড়াবে আইপিএলের ১৪ তম আসর। উদ্বোধনী ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে চেন্নাইয়ের এম. এ. চিদাম্বরম স্টেডিয়ামে। দেড় মাসের লড়াই শেষে ৩০ মে বিশ্বের বৃহত্তম ক্রিকেট গ্রাউন্ড আহমেদাবাদের নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামে ফাইনালের মধ্য দিয়ে পর্দা নামবে জনপ্রিয় এই ফ্র্যাঞ্চাইজি ভিত্তিক টুর্নামেন্টের।

আইপিএলের আগের আসর গুলোতে নিজেদের মাঠে দল গুলো খেলার সুযোগ পেলেও এবারের আসরে সব গুলো ম্যাচই খেলতে হবে নিরপেক্ষ ভেন্যুতে। কোন দলই তাদের হোম ভেন্যুতে খেলার সুযোগ পাবে না।

এবারের আসরের ৬০ টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে ৬ টি ভেন্যু আহমেদাবাদ, চেন্নাই, বেঙ্গালুরু, দিল্লি, কলকাতা এবং মুম্বাইয়ে। গ্রুপ পর্বের ৫৬ টি ম্যাচের ভিতর চেন্নাই, মুম্বাই, কোলকাতা ও ব্যাঙ্গালুরুতে অনুষ্ঠিত হবে ১০ টি করে ম্যাচ এবং আহমেদাবাদ ও দিল্লিতে অনুষ্ঠিত হবে ৮ টি করে ম্যাচ।

৫১ দিনের এই টুর্নামেন্টে ১১ দিন দুটি করে ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। দিনের প্রথম ম্যাচ মাঠে গড়াবে বাংলাদেশ সময় বেলা ৪ টায় এবং  দিনের দ্বিতীয় ম্যাচ মাঠে গড়াবে বাংলাদেশ সময় রাত ৮ টায়। ৮ টি দলের ভিতর ছয়টি দল রাতে তিনটি করে ম্যাচ খেলবে এবং বাকি ২ টি দল রাতে দুটি টি করে ম্যাচ খেলার সুযোগ পাবে।

করোনার টিকা দেওয়া শুরু হলেও এখনো ভারত করোনা সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণে আনতে পারেনি। যার কারণে করোনা মাহামারীর বিষয়টি মাথায় রেখে সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করে সূচি তৈরি করেছে আইপিএল গভর্নিং কাউন্সিল। কারণ সূচি এমন ভাবে তৈরি করা হয়েছে যাতে লিগ পর্যায়ে একটা দলকে মাত্র ৩ বার ভ্রমণ করতে হয়।

আইপিএলের সর্বশেষ আসরে মাঠে দর্শক প্রবেশের অনুমতি ছিলো না। ভারতের মাটিতে পরবর্তীতে জৈব সুরক্ষা বায়ো বাবল নিশ্চিত করে আন্তর্জাতিক ম্যাচ অনুষ্ঠিত হলেও দর্শক শূন্য গ্যালারি ছিলো। আইপিএলের এবারের আসরে দর্শকদের মাঠে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে কিনা এই বিষয়ে এখনো কোন সিদ্বান্ত নেওয়া হয়নি।

আরও পড়ুন
মন্তব্যসমূহ
Loading...