আজম খানে ভরসার শেষ নেই পাকিস্তানের

একে তো বিশাল দেহের জন্য দর্শকদের রসিকতা, তার উপর ব্যাটে আসছে না ভালো কোনো পারফর্ম্যান্স। সব মিলিয়ে বলতেই হয় দুঃস্বপ্নের এক বিশ্বকাপ কাটাচ্ছেন পাকিস্তানের উইকেটরক্ষক-ব্যাটার আজম খান।

একে তো বিশাল দেহের জন্য দর্শকদের রসিকতা, তার উপর ব্যাটে আসছে না ভালো কোনো পারফর্ম্যান্স। সব মিলিয়ে বলতেই হয় দুঃস্বপ্নের এক বিশ্বকাপ কাটাচ্ছেন পাকিস্তানের উইকেটরক্ষক-ব্যাটার আজম খান। তবে সময়-দর্শক সবাই যখন তাঁর বিপরীতে, তখনই তাঁর পক্ষে কথা বললেন পাকিস্তানের আরেক ব্যাটার আহমেদ শেহজাদ।

তিনি আজমের বিশাল দেহ নিয়ে চলমান রসিকতা বন্ধ করা আহ্বান করেন। তিনি বলেন, ‘সবারই অধিকার আছে কোনো খেলোয়াড়ের পারফর্ম্যান্স নিয়ে কথা বলার। তবে কারো শারীরিক গঠণ নিয়ে রসিকতা করা থেকে নিজেকে বিরত রাখাই করাই শ্রেয়।’

পাকিস্তানের বিখ্যাত সাবেক উইকেটরক্ষক-ব্যাটার মঈন খানের ছেলে আজম খান। যিনি এবারের বিশ্বকাপে নিজের পারফর্ম্যান্স এবং শারীরিক গঠণ নিয়ে বেশ বিপাকে রয়েছেন। পাকিস্তানের জার্সিতে আহামরি কোনো ইনিংসের দেখা মিলছে না তাঁর কাছ থেকে।

এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের একমাত্র ম্যাচ খেলেছেন যুক্তরাষ্ট্রে বিপক্ষে। সেখানেও করেছেন গোল্ডেন ডাক। পাকিস্তান সেই ম্যাচে স্বাগতিকদের কাছে সুপার ওভারে হেরে যায়। আজমের কপাল জুড়ে যেন নেমে আসে কালো মেঘের ছায়া।

তবে পাকিস্তান শিবিরে এখনো জ্বলছে সুপার এইটে যাওয়ার আশার আলো। ভারতের বিপক্ষে যুক্তরাষ্ট্রের হারে কিছুটা স্বস্তি ফিরিছে বাবর আজমদের মনে। ভাগ্য আর গাণিতিক হিসাব ঠিক থাকলে পরবর্তী পর্বে যেতেও পারে পাকিস্তান।

তবে আজমের ভাগ্য যেন সুতোয় দুলছে। সময়টা মোটেও ভাল যাচ্ছে না তাঁর। তবে বিপদের দিনে আহমেদ শেহজাদের মতো খেলোয়াড়দের কাছ থেকে এমন বক্তব্য কিছুটা হলেও স্বস্তির হাওয়া দিবে আজম খানের মনে।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

আরও পড়ুন
মন্তব্যসমূহ
Loading...