সেরা দুই নিশ্চিত কুমিল্লার

আগেই প্লে অফ নিশ্চিত করা কুমিল্লা এই জয়ের ফলে সেরা দুই দলের মধ্যে একটি হিসেবে থাকছে, এটা নিশ্চিত হলো। এ ছাড়া সেরা দুই দলের আরেকটি হলো ফরচুন বরিশাল। এদিকে সবার আগে প্লে অফের লড়াই থেকে বাদ পড়েছে সিলেট। এখন প্লে অফের বাকী দুই জায়গার জন্য লড়বে ঢাকা, খুলনা ও চট্টগ্রাম। 

মঈন আলির তাণ্ডবময় ব্যাটিংয়ের পর বোলারদের নৈপুণ্যে খুলনা টাইগার্সকে ৬৫ রানে হারিয়ে দাপুটে জয় তুলে নিয়েছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। ৯ ম্যাচে ৬ জয়ের পয়েন্টস টেবিলের শীর্ষে কুমিল্লা, ৯ ম্যাচে ৪ জয়ে ৮ পয়েন্টস নিয়ে এখনো প্লে অফ অনিশ্চিত খুলনার!

আগেই প্লে অফ নিশ্চিত করা কুমিল্লা এই জয়ের ফলে সেরা দুই দলের মধ্যে একটি হিসেবে থাকছে, এটা নিশ্চিত হলো। এ ছাড়া সেরা দুই দলের আরেকটি হলো ফরচুন বরিশাল। এদিকে সবার আগে প্লে অফের লড়াই থেকে বাদ পড়েছে সিলেট। এখন প্লে অফের বাকী দুই জায়গার জন্য লড়বে ঢাকা, খুলনা ও চট্টগ্রাম।

টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে লিটন দাসের ব্যাটে উড়ন্ত সূচনা করে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। লিটন তাণ্ডবে ওপেনিং জুটিতেই আসে ৪৩ রান। এর মাঝে ১৭ বলে ৪১ রান করেন লিটন! দলীয় ৪৩ রানে ১৭ বলে ৩ ছক্কা ও ৪ চারে ৪১ রানের ঝড়ো ইনিংস শেষে আউট হন লিটন। এরপর মাহমুদুল হাসান জয়, ইমরুল কায়েসরা দ্রুত ফিরলে ৭১ রানে তিন উইকেট হারায় কুমিল্লা। ক্রিজে তখন ফাফ ডু প্লেসিস ও মঈন আলী। চতুর্থ উইকেটে দু’জনের দ্রুত এগোতে থাকে রান। এরপর শুরু হয় মঈনের ব্যাটিং তাণ্ডব! মঈন ঝড়ে ১৬ ওভার শেষে দলের সংগ্রহ তখন ৩ উইকেটে ১৩৫ রান। মাত্র ২৩ বলে ৭ ছক্কায় ফিফটি তুলে নেন এই তারকা।

দলীয় ১৫৪ রানে ৩৬ বলে ৩৮ রানে প্লেসিস ফিরলে চতুর্থ উইকেট হারায় কুমিল্লা। শেষ পর্যন্ত মঈনের ৩৫ বলে ৯ ছক্কায় ৭৫ রানে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেটে ১৮৮ রান সংগ্রহ করে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানন্স। থিসারা পেরেরা নেন ২ উইকেট।

বিশাল লক্ষ্যমাত্রা তাড়া করতে নেমে ১৭ রানেই পর পর দুই বলে দুই উইকেট হারিয়ে বিপাকে পড়ে খুলনা। মুস্তাফিজের কাটার ভেলকিতে দুই ওপেনারই ফিরেন ব্যর্থ হয়ে। তৃতীয় উইকেট জুটিয়ে ইয়াসির আলি ও সৌম্য সরকার ২৭ রানের জুটি গড়লেও দলীয় ৪৪ রানে ইয়াসির ও মুশফিকুর রহিম ফিরলে ৪৪ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে ব্যাকফুটে চলে যায় খুলনা। মঈন আলী, আবু হায়দার রনি, নাহিদুল ইসলামদের সামনে অবশ্য আর দাঁড়াতে পারেনি খুলনার ব্যাটাররা। নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারিয়ে মুখ থুবড়ে পড়ে খুলনার ব্যাটিং শিবির।

শেষ পর্যন্ত ইনিংসের ৩ বল বাকি থাকতে মাত্র ১২৩ রানেই গুড়িয়ে যায় খুলনার ইনিংস। ৬৫ রানের দাপুটে জয় পায় কুমিল্লা। আবু হায়দার রনি শিকার করেন সর্বোচ্চ ৩ উইকেট।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানন্স – ১৮৮/৬ (২০ ওভার); মঈন ৭৫(৩৫), লিটন ৪১(১৭), ডু প্লেসিস ; নাবিল ৪-০-২৪-১, খালেদ ৩-০-৩৭-১, থিসারা ৩-০-২৮-২।

খুলনা টাইগার্স – ১২৩/১০ (১৯.৩ ওভার); থিসারা ২৬(২৩), সৌম্য ২২(২৫), ইয়াসির ১৮(১৯), ফ্লেচার ১৬(৭); মঈন ৪-০-২০-২, নাহিদুল ৪-০-২৮-২, মুস্তাফিজ ২-০-১৬-২, রনি ৪-১-১৯-৩।

ফলাফলঃ কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ৬৫ রানে জয়ী।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

আরও পড়ুন
মন্তব্যসমূহ
Loading...