৮৩: পর্দা বনাম বাস্তব

ভারতের সেই প্রথম বিশ্বকাপকে ঘিরে তৈরী হয়েছে পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচিত্র। চলচিত্রের ট্রেলার রীতিমত সাড়া ফেলেছে উপমহাদেশের ক্রিড়াপ্রেমী থেকে শুরু করে সাধারণ চলচিত্র দর্শকদের মাঝেও। '৮৩' নামকরণে চলচিত্রের মূখ্য ভুমিকায় দেখা যাবে বলিউড তারকা রণবীর সিং, দিপীকা পাড়ুকোন এবং পঙ্কজ ত্রিপাঠিদের মত দ্বিগজ অভিনেতাদের।

১৯৮৩ ওয়ানডে ক্রিকেট বিশ্বকাপের ফাইনালে টসে হেরে প্রথমে ব্যাটিং করে ভারত। মোটামুটি একটা পুঁজি পায় ভারত, ১৮৩ রানের। তখনও হয়ত কেউ বিশ্বাস করতে চায়নি কিংবা স্বাভাবিকভাবে ভারত চ্যাম্পিয়ন হবে সেটা ভাবার বিশেষ কোন কারণ ছিল না।

ফাইনালে ওঠাটাও যে ছিল এক মিরাকল। আর প্রতিপক্ষ যখন তার আগের দুইবারের চ্যাম্পিয়ন ওয়েস্ট ইন্ডিজ তখন মাথায় চ্যাম্পিয়ন হবার চিন্তা আনা নেহাৎ বিলাসিতা।

কিন্তু মিরাকেল কিংবা অঘটন ঘটানো তখনও যে ছিল বাকি। ব্যাটিং-টা মাঝামাঝি মানের হলেও ভারতের খেলোয়াড়েরা হয়ত কিঞ্চিৎ পরিমাণ বিশ্বাস রেখেছিল তাঁদের বোলিং আক্রমণের উপর। সেই বোলাররাই শেষে মেষ ভারতের প্রথম বিশ্বকাপ জয়ের অন্যতম নায়ক বনে যান।

ৎবিশেষ করে মদন লাল এবং মহিন্দর অমরনাথ। দুই জনই নিয়েছিলেন তিনটি করে উইকেট। তবে কৃতিত্ব খানিক বেশি পেতে পারেন অমরনাথ। কেননা ম্যাচের টার্নিং পয়েন্টের সূত্রপাত তিনিই করেছিলেন।

ভারতের সেই প্রথম বিশ্বকাপকে ঘিরে তৈরী হয়েছে পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচিত্র। চলচিত্রের ট্রেলার রীতিমত সাড়া ফেলেছে উপমহাদেশের ক্রিড়াপ্রেমী থেকে শুরু করে সাধারণ চলচিত্র দর্শকদের মাঝেও। ‘৮৩’ নামকরণে চলচিত্রের মূখ্য ভুমিকায় দেখা যাবে বলিউড তারকা রণবীর সিং, দিপীকা পাড়ুকোন এবং পঙ্কজ ত্রিপাঠিদের মত দ্বিগজ অভিনেতাদের।

তবে অনেকের মাঝেই প্রশ্ন জেগেছে ১৯৮৩ বিশ্বকাপের ভারত দলে থাকা কোন খেলোয়াড়দের চরিত্রে কোন অভিনেতাদের দেখা যাবে তা নিয়ে। আজকের তালিকায় থাকছে সে প্রশ্নের উত্তর।

  • কপিল দেব – রণবীর সিং

ভারতীয় প্রথম বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক কপিল দেবের চরিত্রে অভিনয় করবেন রণবীর সিং। কপিল দেব সেই বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে অনবদ্য অনন্য এক মারকুটে ইনিংস খেলে দলকে পৌঁছে দিয়েছিলেন সেমিফাইনালে। সে ম্যাচে তাঁর ব্যাট থেকে মাত্র ১৩৮ বলে ১৭৫ রান এসেছিল। সময় বিবেচনায় তা ইতিহাসের অন্যতম।

  • পিআর মান সিং – পঙ্কজ ত্রিপাঠি 

বলিউডে অভিনেতাদের কাতারের শীর্ষের দিকে থাকা পঙ্কজ ত্রিপাঠি এই চলচিত্রে খুবই গুরুত্বপূর্ণ এক চরিত্র উপস্থাপন করতে চলেছেন। পঙ্কজ ত্রিপাঠিকে দেখা যাবে ১৯৮৩ বিশ্বকাপে ভারত ক্রিকেট দলের ম্যানেজার পিআর মান সিং চরিত্রে।

  • সুনীল ওয়াসন – আর বদ্রি

বিশ্বকাপ দলে থাকা বাঁ-হাতি মিডিয়াম পেস বোলার সুনীল ওয়াসন চরিত্রে দেখা যাবে আর বাদ্রিকে। সুনীল ৮৩ বিশ্বকাপে মাত্র একটি ম্যাচ খেলার সুযোগ পেয়েছিলেন।

  • রবি শাস্ত্রী – ধারিয়া কারওয়া

এর আগে ব্যবসা সফল চলচিত্র উরি – দ্য সার্জিকাল স্ট্রাইকে অভিনয় করা ধারিয়া কারওয়া এবার ‘৮৩’ চলচিত্রে অভিনয় করতে চলেছেন রবি শাস্ত্রীর চরিত্রে। অলরাউন্ডার রবি শাস্ত্রী ডান-হাতি ব্যাটার হলেও তিনি ছিলেন বা-হাতি অফ স্পিন বোলার। তিনি ছিলেন সেই বিশ্বকাপ জয়ী দলের সর্বকনিষ্ঠ সদস্য।

  • দিলীপ ভেঙসরকার – আধিনাথ কোঠারে

নিজের প্রথম চলচ্চিত্র ‘পানি’-তে অসাধারণ নির্দেশনার ফলস্বরুপ আধিনাথ কোঠারে জিতেছিলে জাতীয় চলচিত্র পুরস্কার। তিনি এবার অভিনয় করতে চলেছেন দীলিপ ভেঙ্গসরকার চরিত্রে। দীলিপ সুপরিচিত ছিলেন ‘কর্নেল’ নামে।

  •  বলবিন্দর সিং সান্ধু অ্যামি ভিরক 

পাঞ্জাবি গায়ক ও অভিনেতা অ্যামি ভিরক ডান-হাতি মিডিয়াম পেস বোলার বালবিন্দর সিং সান্ধু চরিত্রে অভিনয় করবেন, ‘৮৩’ চলচ্চিত্রে।

  • সৈয়দ কিরমানি- সাহিল খাত্তার

ইউটিউব কন্টেন্ট নির্মাতা সাহিল খাত্তারকে দেখা যাবে উইকেটরক্ষক সৈয়দ কিরমানি চরিত্রে। সৈয়দ কিরমানি ছিলেন ১৯৮৩ বিশ্বকাপের সেরা উইকেটরক্ষক। তাঁর চরিত্রে অভিনয় করা সাহিল খাট্টারের রয়েছে একটি ইউটিউব চ্যানেল, যেখানে সাবসক্রাইবার সংখ্যা প্রায় ১ লাখ ২০ হাজার।

  • মদন লাল – হার্দি সান্ধু 

সাবেক অনূর্ধ্ব ১৯ ভারতীয় দলের ক্রিকেটার এবং বর্তমান পাঞ্জাবি গায়ক হার্ডি সান্ধু অভিনয় করবেন মদন লাল চরিত্রে। হার্সি সান্ধু তাঁর ক্রিকেট ক্যারিয়ারে শিখর ধাওয়ান ও ঈশান্ত শর্মাদের মতো খেলোয়াড়দের সাথে খেলেছেন। তিনি ৮৩ বিশ্বকাপে জয়ের নায়ক অলরাউন্ডার মদন লাল চরিত্র উপস্থাপন করবেন রুপালি পর্দায়।

  • রজার বিনি – নিশান্ত ধাহিয়া 

ইংলিশ কন্ডিশনে সবচেয়ে সফল বোলার রজার বিনি ছিলেন ১৯৮৩ বিশ্বকাপের সর্বোচ্চ উইকেট সংগ্রাহক। তিনি ১৮টি উইকেট নিয়ে ছিলেন তালিকার শীর্ষে। তাঁর চরিত্রে নিশান্ত ধাহিয়া।

  • কীর্তি আজাদ – দিনকার শর্মা

১৯৮৩ বিশ্বকাপ দলের অন্যতম মারকুটে ডান-হাতি ব্যাটার কীর্তি আজাদ অফ স্পিন বোলিং এও ছিলেন দারুণ পারদর্শী। চলচিত্রের পর্দায় তাঁর চরিত্রে অভিনয় করবেন দিনকার শর্মা।

  • সন্দীপ পাতিল – চিরাগ পাতিল 

বাবা চরিত্রে অভিনয় করবেন ছেলে। এমন অনন্য ঘটনার দেখা মিলবে ‘৮৩’ চলচিত্রে। বাবা সন্দীপ পাতিলের চরিত্রে দেখা যাবে ছেলে চিরাগ পাতিলকে। সন্দীপ ছিলেন অত্যন্ত মারকুটে ব্যাটারদের একজন। সেমিফাইনালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৫১ রান ও ফাইনালে উইন্ডিজদের বিপক্ষে ২৭ করেন তিনি

  • যশপাল শর্মা –  যতিন সার্না

ভারতের ওয়েব সিরিজের মধ্যে অন্যতম ‘স্যাকরেড গেমস’-এ অভিনয় করা জতিন সার্নাকে দেখা যাবে যশপাল শর্মার চরিত্রে। যশপালের ছিলেন ভারতীয় দলের দু:সময়ের পথ প্রদর্শক। তাঁর গায়ে তাই ‘ক্রাইসিস ম্যান’ তকমা এঁটে যায়।

  • মহিন্দর অমরনাথ – সাকিব সালিম

১৯৮৩ বিশ্বকাপ ফাইনালের ম্যাচ সেরা খেলোয়াড় মহিন্দর অমরনাথ চরিত্রে রুপালি পর্দায় দেখা যাবে সাকিব সালিমকে। যিনি কিনা এর আগে ‘রেস থ্রি’ চলচিত্রের মতো বড় বাজেটের চলচিত্রে অভিনয় করেছেন।

  • কৃষ্ণমাচারি শ্রীকান্ত – জিভা 

দক্ষিণ ভারতীয় অভিনেতা জিভা অভিনয় করবেন কৃষ্ণমাচারি শ্রীকান্ত চরিত্রে। কৃষ্ণমাচারির ব্যাট থেকে আসা ৩৮ রানও বেশ ফলপ্রসূ প্রমাণিত হয়েছে দিনশেষে, যা কিনা বিশ্বকাপ জয়ে গুরুত্ববহন করে।

  • সুনীল গাভাস্কার – তাহির রাজ ভাসিন 

তাহির রাজ ভাসিন ১৯৮৩ বিশ্বকাপ নিয়ে তৈরি করা চলচিত্র ‘৮৩’-তে কিংবদন্তি ব্যাটার সুনীল গাভাস্কারের চরিত্রে অভিনয় করবেন। সুনীল গাভাস্কারকে ভারতের ইতিহাসের অন্যতম সেরা একজন ব্যাটার বিবেচনা করা হয়।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

আরও পড়ুন
মন্তব্যসমূহ
Loading...