শিশু আমেরিকার বিপক্ষে ‘শিশুতোষ’ সাকিব

যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে সিরিজ দিয়ে তিনি ফর্মে ফিরবেন সেটাই আশা ছিল। কিন্তু প্রথম ম্যাচে সেই আশা নিরাশায় পরিণত হয়েছে দুর্ভাগ্যজনক রান আউটের কারণে।

ব্যাট হাতে সাকিব আল হাসান দু:সহনীয় একটা সময় কাটাচ্ছেন; একের পর এক ম্যাচ খেলেও রানের দেখা পাচ্ছেন না। সামনেই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ, এর আগে যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে সিরিজ দিয়ে তিনি ফর্মে ফিরবেন সেটাই আশা ছিল। কিন্তু প্রথম ম্যাচে সেই আশা নিরাশায় পরিণত হয়েছে দুর্ভাগ্যজনক রান আউটের কারণে।

ইনিংসের যখন বারোতম ওভার, ক্রিজে তখন সেট হওয়ার জোর চেষ্টা চালাচ্ছিলেন এই বাঁ-হাতি; তাঁর নামের পাশে ছিল ১২ বলে ৬ রান। সেসময় স্ট্রাইকে থাকা তাওহীদ হৃদয় পয়েন্টের দিকে বল ঠেলে দিয়ে সিঙ্গেল রানের জন্য দৌড় দেন। কিন্তু পরক্ষণেই সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করে আবার পপিং ক্রিজের দিকে রওয়ানা দেন তিনি।

তবে যা হওয়ার ততক্ষণে হয়ে গিয়েছে, তাঁর ডাকে সাড়া দিয়ে সাকিব বাইশ গজের অনেকটা পেরিয়ে গিয়েছিলেন। ফলে স্টিভেন টেইলর বল থ্রো করলে রান আউটের ফাঁদে আটকা পড়েন তিনি। এমনকি ডাইভ দিয়ে আউট হওয়ার হাত থেকে বাঁচার চেষ্টা করার সুযোগও হয়নি তাঁর।

লিটন দাস, সৌম্য সরকারদের পর নাজমুল হোসেন শান্ত দ্রুতই আউট হয়ে বাংলাদেশের বিপদ ডেকে এনেছিলেন। সেই বিপর্যয় থেকে দলকে উদ্ধার করতে চেয়েছিলেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার, যদিও সেটা আর সম্ভব করা হয়নি তাঁর পক্ষে।

সাম্প্রতিক সময়ে এই বাঁ-হাতির বোলিং পারফরম্যান্স তাঁর সঙ্গে মানানসই হলেও, ব্যাটিংয়ে একেবারেই নাজেহাল রূপে দেখা যাচ্ছে তাঁকে। বিশেষ করে চোখের সমস্যার কথা প্রকাশ্যে আসার পর ব্যাপারটি আরো স্পষ্ট হয়ে উঠছে।

তবু নামটা যখন সাকিব আল হাসান তখন প্রত্যাশা কখনোই কমানো যায় না। আরো একবার হয়তো ২০১৯ সালের মত কিছু ঘটুক সেটাই কামনা পুরো দেশের ক্রিকেটপ্রেমীদের। এখন দেখার বিষয়, ভিন্টেজ রূপে ফিরতে পারেন কি না লাল-সবুজের পোস্টার বয়।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

আরও পড়ুন
মন্তব্যসমূহ
Loading...