সময় এখন বায়োপিকের

ভারতে ক্রিকেটকে কখনোই বিনোদনের জগৎ থেকে আলাদা করা যায় না। বরাবরই স্পোর্টস বায়োপিক বলিউডে সাফল্যের সূত্র ধরে রেখেছে।

ভারতে ক্রিকেটকে কখনোই বিনোদনের জগৎ থেকে আলাদা করা যায় না। বরাবরই স্পোর্টস বায়োপিক বলিউডে সাফল্যের সূত্র ধরে রেখেছে। ভারতের সবচেয়ে জনপ্রিয় খেলা ক্রিকেট হওয়ায়, সাবেক ভারতীয় অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি ও ভারতের প্রথম বিশ্বকাপ জয়ের ওপর উপর ভিত্তি করে নির্মিত যথাক্রমে ‘এমএস ধোনি’ এবং ‘৮৩’-এর মতো বায়োপিকগুলি বক্সঅফিসে দুর্দান্ত ব্যবসা করেছে৷

সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে মিতালি রাজের বায়োপিকশাবাশ মিঠু‘-এর টিজার। আবার নারী ক্রিকেটার ঝুলন গোস্বামীর জীবনের উপর ভিত্তি করেচাকদা এক্সপ্রেস’ শিরোনামের আরেকটি বায়োপিক আসছে। এখানে আমরা বিখ্যাত ক্রিকেটারদের বায়োপিকগুলির একটি তালিকা দিচ্ছি, যা আপনাদের ভুলেও মিস করা উচিৎ হবে না।

  • সাবাশ মিঠু 

সদ্য অবসরে যাওয়া ভারতীয় নারী ক্রিকেটার মিতালি রাজের বায়োপিকটি শীঘ্রই প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাবে। গেল সোমবার, ছবিটির টিজার তাপসী পান্নু সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করেছেন। ‘শাবাশ মিঠু’ তে মূখ্য ভূমিকায় দেখা যাবে এই অভিনেত্রীকে। এই ছবিটি পরিচালনা করেছেন বিখ্যাত পরিচালক সৃজিত মুখার্জি।

  • চাকদা এক্সপ্রেস

এই বায়োপিকে আনুশকা শর্মা সাবেক ভারতীয় পেসার ঝুলন গোস্বামীর ভূমিকায় অভিনয় করতে দেখা যাবে। বাঙালি ক্রিকেটার ঝুলন গোস্বামীর জীবন সেলুলয়েডে তুলে ধরার উদ্যোগ নিয়েছেন পরিচালক সুশান্ত দাস। চাকদা এক্সপ্রেস হবে সন্তান ভামিকার জন্মের পর করা আনুষ্কার প্রথম সিনেমা। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে  নিয়মিত এই সিনেমার আপডেট দিতে দেখা যায় এই অভিনেত্রীকে।

  • এম এস ধোনি: দ্য আনটোল্ড স্টোরি 

এম এস ধোনির বায়োপিকটিতে প্রয়াত অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত দারুণ অভিনয় করেছিলেন। সিনেমাটি বক্স অফিসে সমস্ত ধরণের রেকর্ড ভেঙে দিয়েছিল। ক্রিকেট অনুরাগীদের এটি এতোটাই পছন্দ হয়েছিল যে, নিঃসন্দেহে এটি সর্বকালের সেরা ক্রিকেটভিত্তিক চলচ্চিত্রগুলির মধ্যে একটি হিসেবে বিবেবিত হবে।

  • আজহার 

সাবেক ভারতীয় অধিনায়ক মোহাম্মদ আজহারউদ্দিনের উপর ভিত্তি করে নির্মিত সিনেমা। যা তাঁর বিতর্কিত ব্যক্তিত্বের যাত্রা দেখায়, যেমনটি বাস্তবেই ‘আজহার’ ছিলেন। সিনেমাটি প্রচুর ড্রামা এবং রোমাঞ্চের ডালি নিয়ে হাজির হয়েছিল।। ইমরান হাশমির দুর্দান্ত অভিনয় আজহারের চরিত্র ফুটিয়ে তোলার জন্য প্রশংসার দাবিদার।

  • ৮৩

ভারতের প্রথম বিশ্বকাপ জয়ের গল্পের ওপর ভিত্তি করে তৈরি সিনেমাটি। এইটিথ্রিতে  রণবীর সিং, দীপিকা পাড়ুকোনের মতো তারকা চরিত্র রয়েছিলেন। রণবীর সিং এখানে কপিল দেবের চরিত্রে অভিনয় করেন। কবির খান পরিচালিত চলচ্চিত্রটি অসংখ্য রেকর্ড ভেঙেছে। প্রত্যেক ভারতীয় ক্রিকেট ভক্তের এটি দেখা উচিত।

  • শচীন: এ বিলিয়ন ড্রিমস

যদিও জেমস এরস্কাইনের ছবিটি সরাসরি বায়োপিক না, অনেকটা ডকুমেন্টারির মতো ছিল। এটি শচীন টেন্ডুলকারের কিশোর বয়স থেকে বিশ্ব বিখ্যাত হওয়ার যাত্রা দেখায়। ডকুমেন্টারিটির সবচেয়ে চমকপ্রদ বিষয় হলো শচীন নিজেই সমস্ত বিবরণ বর্ণনা করেছেন। যা এটিতে বাস্তবসম্মত অনুভূতির যোগান দেয়।

আরও পড়ুন
মন্তব্যসমূহ
Loading...