প্রথমবারের মত সিপিএলে নেই কোনো বাংলাদেশি

আইসিসির নিষেধাজ্ঞায় থাকার কারণে সাকিব এবারের সিপিএলে অংশ নিতে পারছেন না। সাকিবের বাইরে গত আসরে একমাত্র বাংলাদেশি হিসেবে ক্যারিবিয়ান টুর্নামেন্টে ক্লাব পেয়েছিলেন আফিফ হোসেন। কিন্তু আন্তর্জাতিক সুচির কারণে তিনি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) কাছ থেকে অনাপত্তি পত্র পাননি।

ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (সিপিএল) বরাবরই খেলে এসেছেন বাংলাদেশের সাকিব আল হাসান। এবার নিষেধাজ্ঞার কারণে তিনি নেই। নিলামেই ওঠেনি তাঁর নাম। তবে, নিলামে মোট ১৮ জন বাংলাদেশি ক্রিকেটার উঠেছিলেন। কেউই দল পাননি।

মঙ্গলবার নিজেদের দল গঠন করে ফেলেছে সিপিএলের ছয়টি ফ্র্যাঞ্চাইজি। দলগুলো পাঁচজন করে বিদেশি খেলোয়াড় অন্তর্ভুক্ত করতে পারে। লিগের অধিকাংশ ফ্র্যাঞ্চাইজিই অবশ্য আগের বছরের তিনজন করে খেলোয়াড় ধরে রেখেছিল। যে কারণে নতুন করে বাংলাদেশি খেলোয়াড়ের ক্লাব পাওয়ার সুযোগ কমই ছিল।

ত্রিনিদাদ ও টোবাগোয় রুদ্ধদ্বার স্টেডিয়ামে ১৮ আগস্ট থেকে শেষ হবে ১০ সেপ্টেম্বও অনরুষ্ঠিত হবে এবারের সিপিএল। তবে ক্যারিবীয় দ্বীপপুঞ্জে করোনা সংক্রমণ না কমলে টুর্নামেন্ট হতে পারে শুধু ত্রিনিদাদে।

২০১৪-১৫ মৌসুমের পর এই প্রথম বাংলাদেশি কোন খেলোয়াড়ের অংশগ্রহন ছাড়া আয়োজিত হতে যাচ্ছে সিপিএল। বাংলাদেশের প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে সিপিএলে যোগ দিয়েছিলেন অল রাউন্ডার সাকিব আল হাসান। তার করা ৪-০-৬-৬ বোলিং ফিগারটি এখনো আসরের সেরা বোলিংয়ের আসন দখল করে আছে।

আইসিসির নিষেধাজ্ঞায় থাকার কারণে সাকিব এবারের সিপিএলে অংশ নিতে পারছেন না। সাকিবের বাইরে গত আসরে একমাত্র বাংলাদেশি হিসেবে ক্যারিবিয়ান টুর্নামেন্টে ক্লাব পেয়েছিলেন আফিফ হোসেন। কিন্তু আন্তর্জাতিক সুচির কারণে তিনি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) কাছ থেকে অনাপত্তি পত্র পাননি।

আরও পড়ুন
মন্তব্যসমূহ
Loading...