ভারতের কোচ হচ্ছেন গৌতম গম্ভীর

আন্তর্জাতিক বা ঘরোয়া পর্যায়ে কোচিংয়ের কোন অভিজ্ঞতা না থাকলেও গৌতম গম্ভীরকে কোচ হিসেবে দায়িত্ব নেয়ার জন্য প্রস্তাব দেয়া হয়েছে। 

ভারতীয় দলের কোচ হিসেবে রাহুল দ্রাবিড়ের পথচলা প্রায় শেষের দিকে। তাই তো নতুন কোচের খোঁজে রয়েছে বোর্ড অব কন্ট্রোল ফর ক্রিকেট ইন ইন্ডিয়া (বিসিসিআই)। কে হবেন নতুন কোচ এমন প্রশ্নে যখন আলোড়িত হতে শুরু করেছে ক্রিকেটাঙ্গন তখনি জানা গেলো বিস্ময়কর তথ্য। আন্তর্জাতিক বা ঘরোয়া পর্যায়ে কোচিংয়ের কোন অভিজ্ঞতা না থাকলেও গৌতম গম্ভীরকে কোচ হিসেবে দায়িত্ব নেয়ার জন্য প্রস্তাব দেয়া হয়েছে।

বিসিসিআইয়ের পছন্দের কোচদের সংক্ষিপ্ত তালিকায় একেবারে উপরের দিকে আছেন তিনি। সেজন্যই তাঁর আগ্রহ ও ইচ্ছের ব্যাপারে জানতে বোর্ডের পক্ষ থেকে যোগাযোগ করা হয়েছে। দু’পক্ষের মাঝে আরো বিস্তারিত আলোচনা ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) শেষে অনুষ্ঠিত হবে।

দ্রাবিড় ইতোমধ্যে জানিয়ে দিয়েছেন চুক্তি নবায়ন করার কোন ইচ্ছে নেই তাঁর, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পরেই রোহিত শর্মাদের বিদায় বলতে চান তিনি। তিনি চলে গেলে কোচের আসনে কাকে বসাবেন সেই চিন্তায় এখন ব্যস্ত সময় পার করছে ভারতীয় ক্রিকেটের নীতিনির্ধারকরা।

অবশ্য গৌতম গম্ভীরের কোচিংয়ের অভিজ্ঞতা না থাকলেও টিম ম্যানেজম্যান্টের অংশ হিসেবে দারুণ সফল তিনি। ২০২২ এবং ২০২৩ সালে মেন্টর হিসেবে লখনৌ সুপার জায়ান্টসের সঙ্গে ছিলেন, দুইবারই লখনৌ প্লে-অফে জায়গা পেয়েছিল। আবার ২০২৪ আইপিএলে কলকাতা নাইট রাইডার্সের মেন্টর হিসেবে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে তাঁকে, ফলাফল টেবিল টপার হয়ে পরের রাউন্ডে গিয়েছে দলটি।

এছাড়া লম্বা একটা সময় কলকাতাকে নেতৃত্ব দিয়েছেন এই কিংবদন্তি। দুইবার শিরোপা জিতিয়েছেন, সেরা চারে ছিলেন পাঁচবার। তাছাড়া ভারতীয় জার্সি গায়ে ২০০৭ ও ২০১১ বিশ্বকাপ জয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছিলেন তিনি। সবমিলিয়ে দেশের ক্রিকেটে তাঁর অবস্থান ঈর্ষণীয় জায়গায়।

গত সপ্তাহে কোচের জন্য বিজ্ঞাপন প্রকাশ করেছিল বিসিসিআই। এবার ২০২৭ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত অর্থাৎ আগামী আড়াই বছরের চুক্তি করা হবে নতুন কোচের সঙ্গে। এখন দেখার বিষয়, গৌতম গম্ভীরই কি ‘দ্য ওয়াল’ এর উত্তরসূরী হবেন নাকি অন্য কেউ এসে বসবে তাঁর চেয়ারে।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

আরও পড়ুন
মন্তব্যসমূহ
Loading...