বাবর আজমকে নিয়ে বিবাদে পাকিস্তানের দুই ক্রিকেটার

আলোচনাটি আরও বেড়ে যায়, যখন শেহজাদ অভিযোগ করেন যে, বাবর আজম যোগ্যতাকে উপেক্ষা করে দল নির্বাচনে নির্দিষ্ট কিছু খেলোয়াড়ের পক্ষ নিয়েছেন।

পাকিস্তান ক্রিকেট এবং বিতর্ক যেন একে অন্যের পরিপূরক। চলমান টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে পাকিস্তান দল নিয়ে বিতর্ক যেন থামছেই না। কখনও দলে পক্ষপাতিত্ব নিয়ে বা কখনো তাদের উদ্বোধনী জুটি নিয়ে কিংবা তাদের মিডিল অর্ডার নিয়ে, বিতর্ক থেকেই যাচ্ছে।

এবার সেই বিতর্কে গা ভাসালেন পাকিস্তানের দুই খেলোয়াড়, আহমেদ শেহজাদ ও ইমাম উল হক। বাবর আজমের অধিনায়কত্বের রাজত্ব নিয়ে একে অপরের সাথে বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পরেন তাঁরা। আলোচনাটি আরও বেড়ে যায় যখন শেহজাদ অভিযোগ করেন যে, বাবর আজম যোগ্যতাকে উপেক্ষা করে দল নির্বাচনে নির্দিষ্ট কিছু খেলোয়াড়ের পক্ষ নিয়েছেন।

শেহজাদ দাবি করেন যোগ্য খেলোয়াড়দের জায়গায় বাবর নিজের পছন্দের ক্রিকেটারদের দলে যোগ করেন। তিনি আরও সমালোচনা করেন সিনিয়র খেলোয়াড়েরা নিয়মিত একদশে থাকার কারণে তরুণ ক্রিকেটাররা তাদের প্রতিভা দেখানোর সুযোগ পাচ্ছেন না। চ্যাম্পিয়নস ট্রফির পর আইসিসির কোনো শিরোপা ঘরে তুলতে পারেনি পাকিস্তান। তাই বড় টুর্নামেন্টে পারফরম্যান্সের গুরুত্বের উপর জোর দেন শেহজাদ। অধিনায়ক হিসেবে শাহীনের জায়গায় বাবরের পুন-নিযুক্তি নিয়েও প্রশ্ন তোলেন তিনি।

জবাবে ইমাম উল হক অধিনায়কত্ব যে বোর্ডের সিদ্ধান্ত তা জানান। তিনি সাম্প্রতিক টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে পাকিস্তানের ভাল খেলার কথা বলে শেহজাদের বক্তব্য উড়িয়ে দেন। উল্লেখ্য যে বাবরের অধিনায়কত্বে ২০২১ বিশ্বকাপে সেমিফাইনাল ও ২০২২ বিশ্বকাপে ফাইনালে পৌঁছায় পাকিস্তান।

আলোচনা একটি কৌতূহলী মোড় নেয় যখন সাক্ষাৎকারকারী প্রশ্ন করেন যে বাবরের সমালোচনাকারী খেলোয়াড়েরা দলে কিভাবে জায়গা পাচ্ছে। উত্তরে শেহজাদ বলেন যে নিজের পক্ষপাতিত্ব ঢাকতে বাবর এমনটা করেছেন। সাথে তিনি এও বলেন যে, তাদের অনেকের উচ্চ কর্তৃপক্ষের সাথে ব্যাক্তিগত সংযোগ আছে।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

আরও পড়ুন
মন্তব্যসমূহ
Loading...