হঠাৎ আলোচনায় সৌম্য-সাব্বির

দিনের অনুশীলন তখন শেষ। সৌম্য সরকার ও সাব্বির রহমান নিজেদের মধ্যে কিছু একটা বলছিলেন। এরমধ্যেই হঠাৎ কল আসলো সৌম্য সরকারের। তবে জানা গেছে আরো বড় কল আসতে চলেছে সৌম্যর জন্য। অনেকদিন ধরে জাতীয় দলের বাইতে থাকা, এমনকি আলোচনারও বাইরে থাকা সৌম্য আবার ফিরছেন বাংলাদেশ দলে। তাও গুঞ্জন আবার ফিরছেন এশিয়া কাপ, বিশ্বকাপের মত আসরে।

দিনের অনুশীলন তখন শেষ। সৌম্য সরকার ও সাব্বির রহমান নিজেদের মধ্যে কিছু একটা বলছিলেন। এরমধ্যেই হঠাৎ কল আসলো সৌম্য সরকারের। তবে জানা গেছে আরো বড় কল আসতে চলেছে সৌম্যর জন্য। অনেকদিন ধরে জাতীয় দলের বাইতে থাকা, এমনকি আলোচনারও বাইরে থাকা সৌম্য আবার ফিরছেন বাংলাদেশ দলে। তাও গুঞ্জন আবার ফিরছেন এশিয়া কাপ, বিশ্বকাপের মত আসরে।

আর সাব্বিরের কল কী আসবে?

মাঝের সময়টায় যেন সৌম্য সরকার এক অচেনা ক্রিকেটারই হয়ে গিয়েছিলেন। ২০১৫ সালে আলোর ঝলক দেখিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পদার্পন করা সৌম্য সরকার ধীরে ধীরে মলিন হয়েছেন। তবে গত বছর ব্যাট হাতে একটু বেশিই বাজে সময় কাটাচ্ছিলেন এই ওপেনিং ব্যাটার।

২০২১ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে সুযোগ পেলেও কাজে লাগাতে পারেননি। এছাড়া জাতীয় দলে শেষদিকে তাঁকে নানা পজিশনেই খেলানো হয়েছে। তবে কোনভাবেই রানে ফিরতে পারছিলেন না। জাতীয় দল থেকে বাদ পড়ার পর বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ কিংবা ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগেও নিজের ফর্ম খুঁজে পাননি। ব্যাট হাতে কাটানো এই একটা বছর সৌম্য বোধহয় ভুলেই যেতে চাইবেন।

তবুও বাংলাদেশ টাইগার্সের হয়ে নিজেকে ফিরে পাবার লড়াইটা চালিয়ে যাচ্ছিলেন সৌম্য। রাজশাহীতে বাংলাদেশ টাইগার্সের হয়ে লাল বলে কিছু রানের দেখাও পেয়েছিলেন। তবে এছাড়া সাম্প্রতিক সময়ের সৌম্যের ব্যাটে রানের দেখা পাওয়া যায়নি। তবুও এই ওপেনারের উপর আবার ভরসা করতে চায় বাংলাদেশ। কেননা আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সৌম্য যে প্রতিভার ছাপ রেখে গিয়েছিলেন সেটায় বিশ্বাস রাখতে চান নির্বাচকরা।

তবে জাতীয় দলে সৌম্য সরকারের এই ডাক আসার পিছনের কারণ হলো ওপেনার সংকট। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে কোনভাবেই ওপেনিং জুটি খুঁজে পাচ্ছেনা বাংলাদেশ। তামিম ইকবাল টী-টোয়েন্টি ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা দিয়েছেন। এছাড়া সবচেয়ে বড় ভরসার নাম লিটন দাস হঠাতই পড়েছেন ইনজুরিতে। ফলে এশিয়া কাপে তাঁর খেলাও অনিশ্চিত।

ওদিকে সাম্প্রতিক সময়ে বেশ কয়েকজনকে দিয়েই ওপেন করানোর চেষ্টা করা হয়েছে টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে। মুনিম শাহরিয়ার বিপিএলের ঝলক আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে দেখাতে পারেননি। এনামুল হক বিজয় সুযোগ পেলেও কাজে লাগাতে পারেননি। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে শেষ ম্যাচে অবশ্য সুযোগ দেয়া হয়েছিল পারভেজ হোসেন ইমনকে। তরুণ এই ওপেনার অবশ্য আরো কিছু সুযোগ পেতে পারেন।

সবমিলিয়ে টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে ওপেনিং এর এই সংকট কাটাতে নির্বাচকরা ফিরে যেতে চান সৌম্যের কাছেই। জানা যায় এশিয়া কাপের জন্য নির্বাচকরা তাঁদের দলে রেখেছেন এই ওপেনারকে। এছাড়া অস্ট্রেলিয়ায় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও তাঁকে নিয়ে পরিকল্পনা করছেন তাঁরা।

কেননা ব্যাটিং সহায়ক উইকেটে এই ব্যাটার কতটা বিধ্বংসী হতে পারেন সেটা সবারই জানা। যদিও নির্বাচকদের এই চাওয়া বাস্তবায়ন হবে কিনা তা নির্ভর করবে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের উপর।

ফলে সব ঠিক থাকলে এশিয়া কাপ ও টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাংলাদেশের হয়ে ওপেনিং করতে নামবেন সৌম্য সরকারই। ওদিকে পাওয়ার হিটারের অভাব পূরণ করার জন্য সাব্বির রহমানকেও ফেরানোর একটা গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিল।

বাংলাদেশ ‘এ’ দলের হয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজে ওয়ানডে সিরিজ খেলতে যাওয়ার কথা তাঁর। ফিনিশিংয়ে সংকট থাকলেও এখনো সাব্বিরকে নিয়ে ভাবছেন না নির্বাচকরা। ফলে সৌম্যের ফেরা প্রায় নিশ্চিত হলেও, সাব্বিরের ফেরাটা এখনো স্রেফ একটা গুঞ্জনই।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

আরও পড়ুন
মন্তব্যসমূহ
Loading...