সম্ভাবনার সোনালি মুখে

চোখ যদি আসমানে উঠে যায়, আপনার অবাক হবার বাকি আছে আরও। আইপিএল ইতিহাসে প্রথম খেলোয়াড় দেবদূত, যিনি কিনা অভিষেকের প্রথম চার ম্যাচেই পেয়েছেন ফিফটি। কত কত তরুণ প্রতিভাবানের আইপিএল অভিষেক ঘটেছে, ঘটেছে শচীন, সাঙ্গাকারা, কোহলিরও - তাঁরা যা পারেননি তা করে দেখিয়েছেন দেবদূত।

আপনি কি ক্রিকেট ফ্যান? হতেই পারেন! নাহলে আর এই লেখাটি পড়ছেন কেন? যা হোক, মূল আলোচনায় ফিরে আসি। ২০২০ সালটা আমাদের সবার জন্যেই বিভীষিকাময় একটি বছর গেছে। কিন্তু যদি আপনি ক্রিকেট ফ্যান হন, তবে এই সালেই মনে রাখার মত একটি ঘটনা আপনার নিশ্চয়ই থাকবে- দেবদূত পাদ্দিকাল। আর ২০২০-এই তিনি  থামেননি, পারফরম্যান্সের ধারাবাহিকতা তিনি রেখেছেন ২০২১ সালেও।

তরুণ এই ভারতীয় ব্যাটসম্যানের এটি ছিল প্রথম ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ(আইপিএল)। আর তাতেই তিনি যা করেছেন, করতে চেয়েছেন, ভারতবাসী তাকে ঘিরে আশার খেলাঘর বাঁধতেই পারে।

  • কে এই দেবদূত পাদ্দিকাল?

দেবদূত পাদ্দিকাল হল ২০ বছর বয়সী একজন ভারতীয় ব্যাটসম্যান। লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে খেলেন কর্ণাটকের হয়ে, কর্ণাটক প্রিমিয়ার লিগে বেলারি টাস্কার্সের হয়ে যিনি প্রথমবারের মত আলোচনায় আসেন। আলোচনায় আসে কেন বললাম? খেলতে পারেন উইকেটের চারপাশে, আর তাই দেখেই কিনা ২০২০ আইপিএল নিলামে তাঁকে দলে ভিড়ায় রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু।

তাঁকে ব্যাঙ্গালুরুর ঘরের ছেলেও বলা যায়। কারণ, জন্ম কেরালাতে হলেও বড় হয়েছেন এই শহরেই।

  • আইপিএল ২০২০ ও পাদ্দিকাল

আইপিএল ২০২০ টা দেবদূত পাদ্দিকালের গেছে বাজি ধরার মত এক ‘লম্বা দৌড়’-এর খেলোয়াড় হিসেবেই। প্রথমবারের মত খেলতে নেমে ব্যাঙ্গালুরুর হয়ে ২০ ম্যাচের সবগুলিতেই মাঠে নেমেছেন তিনি। ৩১.৫৩ এভারেজে করেছেন ৪৭৩ রান। রান আর এভারেজের মত দেবদূতের স্ট্রাইক রেটটাও চোখ ধাঁধানো – ১২৪! আপনাকে যদি আমি বলি দেবদূত পাদ্দিকাল তার দলের সবচাইতে বেশি রান সংগ্রাহক, আপনি হয়তো অবাক হতে পারেন। কিন্তু যদি বলি, তার দলের বাকি সদস্যদের মধ্যে আছেন এ বিডি ভিলিয়ার্স আর বিরাট কোহলির মত সর্বজয়ী মহাতারকা – তাহলে আপনার চোখ সপ্তম আসমানে তুলতে বাধ্য!

চোখ যদি আসমানে উঠে যায়, আপনার অবাক হবার বাকি আছে আরও। আইপিএল ইতিহাসে প্রথম খেলোয়াড় দেবদূত, যিনি কিনা অভিষেকের প্রথম চার ম্যাচেই পেয়েছেন ফিফটি। কত কত তরুণ প্রতিভাবানের আইপিএল অভিষেক ঘটেছে, ঘটেছে শচীন, সাঙ্গাকারা, কোহলিরও – তাঁরা যা পারেননি তা করে দেখিয়েছেন দেবদূত।

  • ভবিষ্যতের সম্ভাবনা

দেবদূত পাদ্দিকাল যদি তার এই পারফর্ম্যান্স অব্যাহত রাখেন, চেষ্টার ত্রুটি না করেন, তবে তাঁর ভবিষ্যৎ শুধু ভাল নয়, আকাশচুম্বী বলা যায়। চলতি বছরের আইপিএলে এই পারফর্ম্যান্সের পর বলাই বাহুল্য, সামনের মৌসুমগুলোতেও রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু দলে রেখে দেবে দেবদূতকে। আর যদি তাই হয়, তবে বিরাট কোহলি, এ বিডি ভিলিয়ার্সের সাহচর্যে নিজেকে আরো উচ্চতায় নিয়ে যাবেন দেবদূত।

তবে ভবিষ্যৎ শুধু দেবদূতকে আলোই উপহার দেবে না, চ্যালেঞ্জও ছুড়ে দেবে। দেবদূত পাদ্দিকালকেই প্রমাণ করতে হবে, আইপিএল ২০২০ তার জন্যে মোটেও ফ্লুক ছিল না। সামনের রঞ্জি ট্রফি, আইপিএলে তাকে রান করতে হবে, প্রমাণ করতে হবে নিজের সামর্থ্যের সত্যতা।

আর যদি তাই পারেন, ভারতীয় টি-টোয়েন্টির আকাশী রঙা টুপি তাঁর মাথায় উঠতে হয়তো সময় নেবে না বেশি। আর দেবদূতও ধীরে ধীরে হয়ে উঠবেন ভারতীয় ব্যাটিং লাইন আপের শক্ত স্তম্ভ। পরিশ্রম আর চেষ্টাটা ধরে রাখতে পারলে, দেবদূতের জন্য সেই দিনটা খুব দূরে নয়!

আরও পড়ুন
মন্তব্যসমূহ
Loading...