নায়ক বাবরে পাকিস্তানের জয়

দুই ওপেনারের মধ্যে অন্তত একজন ক্লিক করলেই জয়ের সম্ভাবনা থাকে পাকিস্তানের। আগের ম্যাচে মোহাম্মদ রিজওয়ানের ব্যাট হেসেছিল। জিতেছিল পাকিস্তান। এবার বাবর আজমের ব্যাট হাসল। আর তাতেই চলমান ত্রিদেশিয় টি-টোয়েন্টি সিরিজে টানা দ্বিতীয় জয় পেল পাকিস্তান দল।

দুই ওপেনারের মধ্যে অন্তত একজন ক্লিক করলেই জয়ের সম্ভাবনা থাকে পাকিস্তানের। আগের ম্যাচে মোহাম্মদ রিজওয়ানের ব্যাট হেসেছিল। জিতেছিল পাকিস্তান। এবার বাবর আজমের ব্যাট হাসল। আর তাতেই চলমান ত্রিদেশিয় টি-টোয়েন্টি সিরিজে টানা দ্বিতীয় জয় পেল পাকিস্তান দল। আর এই জয়ে ফাইনালে যাওয়া অনেকটাই চূড়ান্ত হয়ে গেল পাকিস্তান দলের। আগের ম্যাচে তাঁরা হারিয়েছে বাংলাদেশকে।

অধিনায়ক বাবর একদম শেষ অবধি ছিলেন উইকেটে। তাতে ৫৩ ডেলিভারিতে ৭৯ রান করে ছিলেন অপরাজিত। ইনিংসে ছিল ১১ টি চার। চার উইকেটের জয়ে ম্যাচ সেরার পুরস্কার পাকিস্তানের এই অধিনায়কই পেয়েছেন।

শাদাব খানও ব্যাট হাতে জয়ে বড় অবদান রাখেন। তিনি এবার চার নম্বরে ব্যাট করতে নামেন। সেখানে ২২ বলে করেন ৩৪ রান। ইনিংসে ছিল দু’টি চার ও দু’টি ছক্কা।

শুরুতে পাকিস্তান জবাব দিতে নেমে বেশ বড় বিপদেই পড়েছিল। কারণ নিউজিল্যান্ডের দেওয়া ১৪৮ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে মাত্র ৩৭ রানেই দুই উইকেট হারিয়ে ফেলে দলটি। রিজওয়ান ১২ বল খেলে ৪ রান করেন। অন্যদিকে শান মাসুদ দুই বলে রানের খাতা খোলার আগেই ফেরেন সাজঘরে।

সেখান থেকে শাদাব খানের সাথে ৬১ রানের জুটি গড়েন বাবর। আর সেটাতেই জয়ের পথ খুঁজে পায় পাকিস্তান দল। চলতি সিরিজে এটা তাঁদের টানা দ্বিতীয় জয়। ছয় উইকেট ও ১০ বল বাকি থাকতেই জয়ের বন্দরে পৌঁছায় দলটি।

এর আগে টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় নিউজিল্যান্ড দল। নির্ধারিত ২০ ওভারে আট উইকেট হারিয়ে তাঁরা সংগ্রহ করে ১৪৭ রান। ডেভন কনওয়ে ৩৬, মার্ক চ্যাপম্যান ৩৫ ও অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন করেন ৩১ রান।

পাকিস্তানের দিনে সবচেয়ে সফল বোলার ছিলেন হারিস রউফ। এই ফাস্ট বোলার চার ওভার বোলিং করে ২৮ রান দিয়ে নেন চারটি উইকেট। এছাড়া দু’টি করে উইকেট নেন মোহাম্মদ ওয়াসিম জুনিয়র ও মোহাম্মদ নওয়াজ।

জানিয়ে রাখা ভাল, ত্রিদেশিয় সিরিজে কাল মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ ও নিউজিল্যান্ড। ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় বেলা ১২টা বেজে ১০ মিনিটে। অন্যদিকে, পাকিস্তানের পরবর্তী ম্যাচে ১১ অক্টোবর, মঙ্গলবার। প্রতিপক্ষ স্বাগতিক দল নিউজিল্যান্ড। ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১৪ অক্টোবর, শুক্রবার।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

আরও পড়ুন
মন্তব্যসমূহ
Loading...